হামলার সময় ফুরালো গাড়ির তেল, সাহায্য চাইতে গিয়ে ইউক্রেনে বন্দি দুই রুশ সেনা

এবার ইউক্রেনে প্রবল প্রতিরোধের মুখে পড়তে হচ্ছে রুশ সেনাদের। ইতিমধ্যেই ইউক্রেন দাবি করেছে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার রুশ সেনাকে খতম করেছে তারা। বহু সেনাকে বন্দি বানানো হয়েছে। যদিও রাশিয়া সেই দাবি নস্যাৎ করেছে। সেনা হত্যার দাবি এবং পাল্টা দাবির মধ্যেই ইউক্রেনের একটি ঘটনা ভাইরাল হয়েছে।

সে দেশের সাংবাদিক ইলিয়া পোনোমারেঙ্কো দুই রুশ সেনার একটি ছবি টুইট করেছেন। সেখানে তাঁর দাবি, এই দুই রুশ সেনাকে বন্দি বানানো হয়েছে। পোনোমারেঙ্কোর দাবি, খারকিভে হামলা চালানোর সময় মাঝপথেই এই দুই রুশ সেনার গাড়ির তেল ফুরিয়ে যায়। তখন তাঁরা সেখানকার একটি থানায় গাড়ির জ্বালানির জন্য সাহায্য চাইতে যান।

যাদের ঘরে ঢুকে হামলা চালাচ্ছে, তাদের কাছেই সাহায্য! দুই রুশ সেনাকে দেখামাত্রই ঘিরে ধরে পুলিশ। তার পর ওই দু’জনকে যুদ্ধবন্দি বানানো হয়েছে। আরও একটি ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। কিভে হামলা চালাতে গিয়ে মাঝপথেই খারাপ হয়ে যায় রুশ সেনাদের একটি ট্যাঙ্ক।

সেটিকে ঘিরে তাঁরা দাঁড়িয়েছিলেন। সে সময় রাস্তা দিয়ে এই ইউক্রেনীয় গাড়িচালক যাচ্ছিলেন। গাড়ি থামিয়ে ঠাট্টা করে তিনি বলেন, ‘‘আমার গাড়ি দিয়ে ট্যাঙ্ক টেনে নিয়ে গিয়ে রাশিয়ায় পৌঁছে দেব নাকি!’’