রাশিয়াকে মুক্ত হস্তে আর্থিক সহায়তা করার আহ্বান বিজেপি সভাপতির!

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির কেন্দ্রীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে বলা হয়, ‘রাশিয়ার আর্থিক সহায়তার প্রয়োজন। ক্রিপ্টোকারেন্সি মারফত মুক্ত হস্তে দান করুন।’ পুতিনের দেশের জন্য এমন বার্তাই পোস্ট করা হল পোস্টটি ভাইরাল হতেই চাঞ্চল্য পড়ে গিয়েছে। অবশ্য পরে জানা যায়, আদতে হ্যাক হয়ে গিয়েছে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির টুইটার অ্যাকাউন্ট। হ্যাকাররা তার টুইটার অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে রাশিয়ার জন্য আর্থিক সহায়তার অনুরোধ জানিয়েছে।

যদিও পাঁচ মিনিটের মধ্যেই জেপি নাড্ডার অ্যাকাউন্ট উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে বলে খবর। এদিকে ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার পর থেকেই ভারত কোন পক্ষে, তা জানতে উদগ্রীব গোটা বিশ্ব। জাতিসংঘে ভোটাভুটি থেকে বিরত থাকার জেরে এই নিয়ে জল্পনা আরও বেড়েছে। পাশাপাশি দুই দেশের প্রধানের সঙ্গেই ফোনে কথা বলেছেন নরেন্দ্র মোদি।

এই পরিস্থিতিতে ভারতের অবস্থান কোন দিকে, তা নিয়ে জটিলতা তৈরি করতেই হ্যাকাররা জেপি নাড্ডার অ্যাকাউন্ট টার্গেট করেছে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের একাংশের। জাতিসংঘে রাশিয়ার বিরুদ্ধে হওয়া ভোটাভুটিতে অংশ নেয়নি ভারত। বরং ইউক্রেন জট কাটাতে আলোচনার টেবিলে বসার পরামর্শ দিয়েছেন জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ভারতীয় প্রতিনিধি টি এস তিরুমূর্তি। গতকাল শনিবার সকালেই নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে রাশিয়ার বিরুদ্ধে প্রস্তাব আনে আমেরিকা। ওই প্রস্তাবকে সমর্থন করে ১১টি দেশ।

তবে ভারত ওই ভোটে অংশ নেবে না, তা জানিয়ে দেন জাতিসঙ্ঘে ভারতীয় প্রতিনিধি তিরুমূর্তি। এদিকে ভারতের পাশাপাশি চীন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সেই ভোটাভুটিতে অংশ নেয়নি। অর্থাৎ জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ১৫ সদস্যের মধ্যে ১১টি ভোট রাশিয়ার বিপক্ষে যায়। তবে জাতিসঙ্ঘের স্থায়ী সদস্য রাশিয়া ওই প্রস্তাবে ভেটো প্রয়োগ করায় নাকচ হয়ে যায় প্রস্তাব। সূত্র: টিওআই।