প্রতি উপজেলা থেকে ১ হাজার মানুষকে বিদেশে পাঠাবো: প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী

এবার প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বর্তমান সরকারের অঙ্গীকার রয়েছে প্রত্যেকটি উপজেলা থেকে অন্তত ১ হাজার মানুষকে বিদেশে পাঠাবো। অঙ্গীকার রয়েছে প্রত্যিকটি উপজেলায় প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের শাখা করার, যাতে প্রবাসীরা সহজেই তাদের কষ্টার্জিত অর্থ নিরাপাদে তাদের পরিবারের কাছে পাঠাতে পারে। আজ শুক্রবার সকালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলা অডিটরিয়ামে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের টুঙ্গিপাড়া শাখার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় দালালদের মাধ্যমে বিদেশে না যাওয়ার সতর্কতা দিয়ে মন্ত্রী বলেন, দালালদের মাধ্যমে বিদেশ গিয়ে, বিশেষ করে ইউরোপসহ অন্যান্য দেশে গিয়ে সমস্যা পড়ছে। টাকা খরচ করে বিদেশে গিয়ে বিপদের মধ্যে রয়েছে। দালালদের মাধ্যমে পাসপোর্ট বানালে প্রতারিত হবার সম্ভবনা বেশি। এছাড়া সরকারিভাবে পাসপোর্ট তৈরি করার জন্য প্রবাসী ও বিদেশগমনে ইচ্ছুকদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মজিবর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইলিয়াস হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল শেখ, পৌর মেয়র শেখ তোজাম্মেল হক টুটুল, ব্যাংকের সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার ফরহাদ হোসেন বক্তব্য রাখেন।

এরপর মন্ত্রী ফিতা কেটে ও ফলক উন্মোচন করে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ১০১তম টুঙ্গিপাড়া শাখার উদ্বোধন করেন। এরপর দোয়া ও মোনাজাতে অংশ নেন তিনি। এর আগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান মন্ত্রী। পরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শহীদ সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে ফাতহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন।

এ সময় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর সহধর্মিণী ড. নাসরীন আহমদ, গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এ.কে.এম হেদায়েতুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল মামুন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) দেদারুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ সাইফুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।