জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে রিট

দেশে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপন স্থগিত চেয়ে হাই কোর্টে একটি রিট আবেদন করা হয়েছে। সরকারের জারি করা প্রজ্ঞাপন কেন আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত করা হবে না এবং প্রজ্ঞাপনটি প্রত্যাহার বা বাতিল করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না-তা জানতে রুল চাওয়া হয়েছে এই রিটে। আজ সোমবার ৮ আগস্ট সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ হাই কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট আবেদন করেন।

এদিকে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ও উপ সচিব এবং বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) চেয়ারম্যানকে সেখানে বিবাদী করা হয়েছে। জ্বালানি তেলের দাম কমানোর উদ্যোগ রিটে বলা হয়েছে, যৌক্তিক কারণ ছাড়াই অবৈধভাবে’ জ্বালানি তেলের মূল্য বাড়ানোর যে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে. তাতে ‘আইনের লঙ্ঘন’ হয়েছে। আকস্মিক এই মূল্য বৃদ্ধি মানুষের দৈনন্দিন ও পারিবারিক জীবন-যাপনে অস্থিতিশীলতা তৈরি করবে।

রিটে ডিজেল, কেরোসিন, পেট্রোল ও অকটেনের দাম বাড়িয়ে গত ৫ আগস্ট বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের খনিজ সম্পদ বিভাগ প্রজ্ঞাপন জারি করে। ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটার প্রতি ৮০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১১৪ টাকা করা হয়। রিটে বলা হয়েছে, যৌক্তির কারণ ছাড়াই অবৈধভাবে জ্বালানি তেলের মূল্য বাড়ানো যে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে তা আইনের লঙ্ঘন হয়েছে। এই আকস্মিক এই মূল্য বৃদ্ধি মানুষের দৈনন্দিন ও পারিবারিক জীবন-যাপনে অস্থিতিশীলতা তৈরি করবে।

এদিকে আগামী রবিবার বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাই কোর্ট বেঞ্চে এ রিটের শুনানি হতে পারে বলে জানিয়েছেন রিটকারী আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ।