খেলার জন্য নিজের বিয়েতে যেতে পারেননি, পাঠালেন ভাইকে

গত ২১ জুলাই বিয়ের তারিখ নির্ধারিত হয়ে ছিল সিয়েরা লিওনের ফুটবলার মোহামেদ বুয়া তুরের। কিন্তু নতুন ক্লাবে যোগ দেওয়ার তাড়াও ছিল। দুর্ভাগ্যজনক দুটি তারিখ একই দিনে পড়ে যায়। যে কারণে ক্লাবে যোগ দিলে বিয়ের অনুষ্ঠানে থাকা সম্ভব হতো না এই ফুটবলারের জন্য। তুরেও বিয়েতে থাকার চেষ্টা করেননি। বেছে নিয়েছেন নতুন ক্লাব মালমোতে উপস্থিত থাকার বিষয়টি।

কিন্তু নির্দিষ্ট দিনে বিয়ে কি তবে পিছিয়ে যাবে? না, পেছায়নি। বরং তুরের বদলে বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রয়োজনীয় কাজ সারলেন তার ভাই। বিয়েতে উপস্থিত না থাকলেও বিয়ের ছবি আগেই তুলে রেখেছিলেন এই ফুটবলার। যাতে বিয়ের দিন যে সেখানে ছিলেন না, এই বিষয়ে কেউ সন্দেহ না করেন। অবশ্য পরবর্তীতে নিজেই এক সাক্ষাৎকারে বিষয়টি প্রকাশ্যে আনেন এই সিয়েরা লিওনের ফুটবলার।

এদিকে তুরের বিয়েতে না থাকার সিদ্ধান্ত অবশ্য তার জন্য ফলপ্রসূ হয়েছে। ২১ জুলাই মালমোতে যোগ দেওয়ার পরদিনই এই আফ্রিকান ফুটবলারকে দলে ভেড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে সুইডিশ ক্লাবটি। মালমোতে যোগ দেওয়া আগে অবশ্য চাইনিজ লিগে খেলতেন তুরে। হেবেই চায়না ফরচুন এবং হেনান সংশান লংমেনের মাঠ মাতিয়েছেন তিনি।

বুয়া তুরে নিজের বিয়ে-ক্লাবের বিষয় এবং স্ত্রী সুয়াদ বেদৌনকে নিয়ে বলেন, ‘আমরা ২১ জুলাই সিয়েরা লিওনে বিয়ে করেছি। কিন্তু আমি সেখানে উপস্থিত থাকতে পারেনি। আমার নতুন ক্লাব মালমো আমায় তাড়াতাড়ি চলে আসতে বলায়। এই ছবি গুলো আমরা আগেই নিয়ে রেখেছিলাম। যাতে বুঝা যায় সেদিন আমি সেখানে ছিলাম। যদিও আমি ছিলাম না।

আমার ভাই বিয়ের দিন সেখানে আমার পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিল। আমি তাকে দ্রুতই সুইডেনে নিয়ে আসার চেষ্টায় আছি। যাতে মালমোতে তার সঙ্গে কাছাকাছি থাকতে পারি।’ গত বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) মালমোর হয়ে ইউরোপা লিগে অভিষেক হয়েছে তুরের। ম্যাচটিতে ৩-০ গোলে জিতেছে তার দল মালমো।