করোনার মধ্যেই শেবাগের বাড়িতে পঙ্গপালের হানা

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউনে দিল্লির মানুষ ঘরবন্দি। দিল্লির প্রশাসন প্রতি নিয়তই ঘোষণা করে চলেছে প্রয়োজন ছাড়া যেন কেউ বাসা থেকে বের না হন। এবার ঘরবন্দি মানুষকেও দরজা জানালাও বন্ধ করে দিতে হচ্ছে পঙ্গপালের উৎপাতে।

পাকিস্তান থেকে আসা পঙ্গপালের দল রাজস্থানের বিস্তীর্ণ কৃষিজমি উজাড় করে এবার হানা দিয়েছে ভারতের রাজধানীতে। পঙ্গপালের উৎপাতে গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র, উত্তর প্রদেশ, পাঞ্জাবের কৃষকদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

এদিকে ক্রিকেট মাঠে বহু বোলারকে ধোলাই করেছেন তিনি। তাঁর আক্রমণাত্মক ব্যাটিং-এর সামনে হাঁটু গেড়ে বসেছেন তারকা খেলোয়াড়রাও। পরিস্থিতি যেমনই হোক না কেন বীরেন্দ্র শেবাগ সবসময় আক্রমনাত্মক হয়েই খেলতেন। এবার সেই বীরুও পঙ্গপালের হানায় নত হয়ে গেছেন।

ভারতীয় দলের প্রাক্তন ওপেনার থাকেন দিল্লি-এনসিআর এলাকায়। ওই এলাকাতেও আক্রমণ করেছে লাখ লাখ পঙ্গপাল। ইতিমধ্যে গুরুগ্রামের আকাশে পঙ্গপালের দল উড়তে দেখা গিয়েছে। গুরুগ্রামের বহু এলাকায় হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। এমনকী সাইবার হাব এলাকাতেও প্রচুর পঙ্গপালের দেখা মিলেছে।

একই অবস্থা দিল্লির ছত্রপুর এলাকাতেও। সেখানে মানুষকে দিনরাত জানলা দরজা বন্ধ করে থাকতে হচ্ছে। ফাঁকফোকর পেলেই ঘরে ঢুকে পড়ছে কয়েকশো পঙ্গপাল। বিস্তীর্ণ এলাকায় জারি করা হয়েছে হাই অ্যালার্ট। বহু জায়গায় গাছের ওপর প্লাস্টিক দিয়ে ঢেকে রাখতে বলা হয়েছে।

এদিকে পঙ্গপালের সে আক্রমণের ভিডিও নিজের ইন্সটাগ্রামে পোস্ট করেছেন বীরেন্দ্র শেবাগ। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘পঙ্গপালের আক্রমণ’।