আমি আজই জানলাম এটা আমার এক হাজারতম ম্যাচ ছিল: মেসি

চলতি কাতার বিশ্বকাপে সৌদি আরবের বিপক্ষে হার দিয়ে আসর শুরুর পর সমর্থকদের চিন্তায় ফেলে দিয়েছিল আর্জেন্টিনা। তাই গ্রুপের শেষ দুই ম্যাচে বাদ পড়ার শঙ্কা নিয়েই খেলতে হয়। কিন্তু আলবিসেলেস্তেরা বেশ সহজে সেই দুর্গম পথ জয় করে। শুধু তা-ই নয় শেষ ষোলো রাউন্ডে অস্ট্রেলিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়ে আর্জেন্টিনা এখন কোয়ার্টার ফাইনালে।

এদিন পুরো ম্যাচ দাপট দেখালেও শেষ মুহূর্তে কিছুটা ঢিলেঢালা ভাবে খেলে আলবিসেলস্তেরা। গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেস সতর্ক না থাকলে হয়তো সমতায় ফিরত অস্ট্রেলিয়া। পেনাল্টি এরিয়া থেকে কুয়োলের শট দারুণ দক্ষতায় ঠেকিয়ে দেন মার্তিনেস। তাছাড়া খুব একটা ভুগেনি আর্জেন্টিনা।

এদিন দলের জয়ে প্রথম গোলটি করে ক্যারিয়ারের হাজারতম ম্যাচটি স্মরণীয় করে রাখলেন মেসি। সেই সঙ্গে ছাড়িয়ে গেলেন ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ম্যাচ শেষে অধিনায়ক লিওনেল মেসি বলেন, ‘আমি আজই জানলাম যে এটা আমার এক হাজারতম ম্যাচ ছিল। আসলে মুহূর্তটা উপভোগ করতেই ভালোবাসি।’

এ সময় লিওনেল মেসি বলেন, ‘নিয়ন্ত্রিত এক ম্যাচ ছিল। আমার মনে হয় আমরা ম্যাচটি শেষ করতে পারতাম। মার্তিনেসের সেই সেভটি বাদ দিলে সম্ভবত আমরা খুব একটা ভুগিনি। এটি খুবই শারীরিক এক ম্যাচ ছিল। জয় এবং আরও একধাপ এগিয়ে যাওয়ায় খুবই খুশি আমি।’

সেই সেভ নিয়ে মার্তিনেস বলেন, ‘এটি আমার প্রথম বিশ্বকাপ। চেষ্টা করছি সেরাটা দেওয়ার। আমি মাঠে শান্ত আছি এবং এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আজ আমরা সংগ্রাম করেছি, তারা খুবই শক্তভাবে প্রেস করেছে। অদ্ভুতভাবে গোলটি পেয়ে যায় এবং তা মেনে নেওয়া কঠিন ছিল আমাদের জন্য।’ মেসির ব্যাপারে মার্তিনেসের ভাষ্য, ‘যখন প্রয়োজন হয় মেসি সামনে থেকে নেতৃত্ব দেয় এবং তাকে অবশ্যই আমাদের সাহায্য করা উচিত।’