আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণার পর চেয়ার ভাঙচুর

আজ বিকেলে ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ সময় চেয়ার ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার ৩ ডিসেম্বর বিকেলে নগরীর ঐতিহাসিক সার্কিট হাউজ মাঠে এ ঘটনা ঘটে। ইতোমধ্যে ফেসবুকে চেয়ার ছোড়াছুড়ির একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। উপস্থিত নেতা-কর্মীরা জানান, শনিবার বিকেলে কমিটি ঘোষণার পরপরই দর্শক সারির নেতাকর্মীদের একটি অংশ সম্মেলন-স্থলের চেয়ার ভাঙচুর করেন।

এদিকে ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটিতে এহতেশামূল আলমকে সভাপতি ও মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলকে আবারও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়েছে। এ ছাড়া মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি করা হয়েছেন সদ্য সাবেক কমিটির সহসভাপতি ও সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু, সাধারণ সম্পাদক পদে অপরিবর্তিত রয়েছেন সাবেক ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের ছেলে মোহিত-উর-রহমান শান্ত।

এ বিষয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ বলেন, শনিবার বিকেলে সম্মেলন শেষে অতি উৎসাহী কিছু লোক সম্মেলন-স্থলের কয়েকটি চেয়ার ভাঙচুর করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে। কার সমর্থকরা এমন ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানা যায়নি।

এর আগে গত ২০১৬ সালের ৩০ এপ্রিল ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় সম্মেলনস্থলে কমিটি ঘোষণা হয়নি। একই বছরের ১০ অক্টোবর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলের নাম ঘোষণা করা হয়। এ ছাড়া মহানগর কমিটিতে সভাপতি হন এহতেশামুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক পদে আসেন মোহিত উর রহমান।