কুরআনের পাখি তানাজার নুজৌলির ইন্তেকাল

189

কুরআন মুসলমানদের প্রধান ধর্মগ্রন্থ। ইসলামী ইতিহাস অনুসারে দীর্ঘ তেইশ বছর ধরে খণ্ড খণ্ড অংশে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর নিকট অবতীর্ণ হয় পবিত্র কুরআন। একজন মুসলমান হিসেবে অবশ্যই আমাদের কুরআন পড়া উচিৎ। যুগ যুগ ধরে বহু মানুষ কোরআনের সেবা করে যাচ্ছেন।

নতুন খবর হচ্ছে, কুরআনের পাখি খ্যাত আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের কুরআনের শিক্ষিকা তানাজার আল নুজৌলি (৯৭) ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

বিশ্বব্যাপী অসংখ্য শিক্ষার্থী তার কাছে কুরআনের দারস ও পঠনরীতির সবক নেন। তিনি ছিলেন কুরআনের পঠনরীতির একজন আদর্শ শিক্ষিকা। তার দেয়া কুরআনের দারস ও পঠনরীতি ছিল গোছালো ও উপভোগ্য। দুনিয়াজুড়ে ছিল তার খ্যাতি ও সুনাম। কুরআনের প্রেমে ও দারসের টানে তার থেকে সনদ পাওয়ার আশায় বিশ্ব থেকে তার কাছে ছুটে আসতো শিক্ষার্থীরা।

আল-জাজিরা আরবির তথ্য মতে, ‘তানাজার নুজৌলি’ দীর্ঘ ৭০ বছর ধরে আল-আজহারে কুরআনের খেদমতে নিয়োজিত ছিলেন। প্রবীণ এ নারী কুরআনের শিক্ষিকা ১৯২৪ সালে মিসরের ডেল্টা জেলঅর সামানউদ কেন্দ্রের এক গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। জীবনের শুরুতেই তিনি দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছিলেন।

দৃষ্টিহীনতা তাকে কুরআন শেখা, মুখস্ত করণ ও উচ্চ শিক্ষা থেকে দমিয়ে রাখতে পারেনি।