তাবলিগ জামাতকে নিষিদ্ধ করা উচিত: তসলিমা নাসরিন

726

দিল্লির নিজামুদ্দিন এলাকার মসজিদে আয়োজিত তাবলিগ জামাতে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে অন্তত ৬৪৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে।

শুক্রবার দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে এ তথ্য দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। ওই তাবলিগ জামাতের সঙ্গে যুক্ত অন্তত ১২ জন ইতোমধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

এ অবস্থায় তাবরিগ জামাত নিষিদ্ধ করার দাবিতে সরব হয়েছেন বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। টুইটে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি।

টুইটারে তিনি লেখেন, তাবলিগ জামাতের উদাসীনতার জন্য বহু মানুষের প্রাণহানি হচ্ছে। তাই তাবলিগ জামাতকে নিষিদ্ধ করা উচিত।

এরআগেও টুইট করে নিজামুদ্দিনের জমায়েতের প্রসঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তসলিমা। আগে তিনি লিখেছিলেন, তাবলিগ জামাত হচ্ছে গন্ডমূর্খদের সংগঠন। এটাকে উজবেকিস্তান, কাজাখাস্তান, তাজাকিস্তানের মতো দেশ এই প্রতিষ্ঠানকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। জামাতের সঙ্গে পরোক্ষে যোগ রয়েছে সন্ত্রাসবাদের। এটাকে বিশ্বের সব দেশে নিষিদ্ধ করা উচিত।

এছাড়া মালয়েশিয়ায় করোনা আক্রান্তের মৃত্যুর প্রসঙ্গ টেনে তসলিমা টুইট করেন। তিনি লিখেছিলেন, মালয়েশিয়ায় মৃত্যুর সঙ্গে তাবলিগ জামাতের যোগ রয়েছে। তারপরেও ভারত কেন জমায়েত করতে দিল?

এদিকে, চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর সংখ্যা ৬০ হাজার ছাড়িয়েছে। শনিবার (৪ এপ্রিল) বাংলাদেশ সময় বিকেল পর্যন্ত মোট ৬০ হাজার ১৪৯ জনের মৃত্যুর তথ্য পাওয়া গেছে। এছাড়া শনাক্ত হয়েছেন ১১ লাখ ৩০ হাজার ৮১৪ জন।

পরিসংখ্যান বিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্য মতে, এখন পর্যন্ত শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে ৮ লাখ ৩৪ হাজার ৭৬৩ জনের শরীরে এখনো করোনার উপস্থিতি আছে। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ লাখ ৩৫ হাজার ৯০২ জন।