নিজের হাতে ভাত-মুরগি রান্না করে শহরের কুকুরদের পাশে জয়া আহসান

704

করোনাভাইরাসের কারণে ঘরবন্দি মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষেরা। শহরও হয়ে পড়েছে ফাঁকা। মানুষ না থাকায় এই ফাকা শহরের কুকুরগুলোও পড়েছে বিপাকে। তারাও খাবার না পেয়ে শুকিয়ে কঙ্কালসার হয়ে যাচ্ছে।

শহরের অসচ্ছল মানুষদের কথা চিন্ত করে অনেকেই তাদের পাশে এসে খবার নিয়ে হাজির হলেও শহরের ঘুরেবেড়ানোর এইসব পশুদের খবর নিচ্ছেন না তেমন কেউ। এবার এই কুকুরদের পাশে এসে দাঁড়ালেন অভিনেত্রী জয়া আহসান।

গত দুই সপ্তাহ ধরে ঢাকায় নিজ বাসায় হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন অভিনেত্রী জয়া আহসান। নিজের পোশা কুকুর ক্লিওপেট্রার আর নিজেদের ছাদবাগানের সঙ্গে কাটছিলো তার সময়।

তবে হুট করে দুশ্চিন্তায় পড়লেন রাজপথে থাকা অসহায় কুকুরদের কথা ভেবে। খবর পেলেন, চলমান লকডাউনের কারণে সড়কের কুকুরগুলো পাচ্ছে না পর্যাপ্ত খাবার। তাই নিজ হাতে ভাত আর মুরগি রান্না করে মাস্ক আর গ্লাভস পরে খাবারের ব্যাগ হাতে নিয়ে বাসার সহযোগীকে নিয়ে ছুটলেন নগরীর দিলুরোড, ইস্কাটন গার্ডেন ও মগবাজার এলাকার বিভিন্ন স্থানে।

২৭ মার্চ দুপুর থেকে টানা কুকুরদের খাবার দিয়ে আসছেন জয়া। তবে এ বিষয়ে মন্তব্য করতে নারাজ তিনি। তবে মন্ত্য করেন জয়ার আহসানের ভাই অদিত মাসুদ। তিনি নিজেও জানতেন না ঘটনাটি। ৩১ মার্চ বাসার গৃহপরিচারিকার কাছ থেকে তিনি এই খবরটা ও ছবিগুলো পেয়েছেন। বোনের এমন উদ্যোগে দারুণ খুশি হয়েছেন।

তার মন্তব্য, মানুষের পাশে অনেক মানুষ ও প্রতিষ্ঠান আছে। কিন্তু এই অসহায়-অভুক্ত কুকুরগুলোর পাশে তো তেমন কেউ নেই।