মনে হচ্ছিল দা’ম্ভিক ও সিরিয়াল কি’লার, মে’রে ফেলবে ভেবে পরিচয় দেইনিঃ ঢা’বির সেই শিক্ষার্থী

243

রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী স’ম্ভ্রমহানির শি’কার হয়েছে । গত রোববার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাতটার দিকে কুর্মিটোলা বাস স্টপেজে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে নামার পর এ ঘটনা ঘটে।

স’ম্ভ্রমহানির শিকার শিক্ষার্থীর সঙ্গে রাতে হাসপাতালে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম। তবে কি ঘটেছিল শিক্ষার্থীর সঙ্গে তখন- তার বর্ণনা পাওয়া গেছে এই অধ্যাপকের কাছ থেকে।

ঘটনার বিবরণে ভিকটিম কী বলেছেন জানতে চাইলে সাদেকা হালিম বলেন, দেখে (ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী)মনে হচ্ছিল সিরিয়াল কি’লার। ঠাণ্ডা মাথায় যে ধ’র্ষ’ণের মতো অপরাধ ঘটিয়েছে একাধিকবার এবং মেয়েটিকে জো’র করে পোশাকও পরিবর্তন করিয়েছে, আবার ধ’র্ষ’ণ করেছে।

ড. সাদেকা হালিম বলেন, ‘আমি তার (ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী) কাছ থেকে বিবরণ শুনছিলাম আর ভাবছিলাম, মেয়েটি আমারই মেয়ে। কী প্রচণ্ড ব্য’থা সহ্য করছে!’

ওই ছাত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে এমন কয়েকজন জানান, ‘ধ’র্ষ’ক বারবার আমার (ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী)নাম জিজ্ঞেস করছিল। আমি ভাবছিলাম, আমি ঢাবি শিক্ষার্থী বললে আমাকে মে’রে ফেলবে। আমার পরিচয় জানলে আমি বাঁচ’ব না। ওই লোক খুব দা’ম্ভিক ছিল। আমি তাকে প্রতিরোধ করতে পারিনি।’